রামুতে ডাকাতির উদ্দেশ্যে প্রবাসীর বাড়িতে হানা : ৫ লক্ষাধিক টাকার ক্ষয়ক্ষতি

কক্সবাজারের রামু উপজেলার রশিদ নগর ইউনিয়নের কাদমেরপাড়া গ্রামে এক প্রবাসী পরিবারের বসত ঘরে ধারালো অস্ত্রধারী দুর্বৃত্তদের হানা ও ফাঁকা গুলি বর্ষণ করে আতংক সৃষ্টি করেছে। বসতভিটার গাছ কেটে ফেলা এবং নতুন ও পুরাতন পাকা বাউন্ডারী দেয়াল, ঘরের দরজা, জানালার গ্লাস ভাংচুর করে আনুমানিক ৫ লাখ টাকার ক্ষয়ক্ষতি করেছে।

বুধবার (২৯ ডিসেম্বর) গভীর রাত ২ টায় চলে দুর্বৃত্তদের এই তান্ডব।

জানা যায়, বুধবার গভীর রাত আড়াইটার দিকে ইউপি সদস্য সালাহ উদ্দিনের নেতৃত্ব ১০/১২ জন দুর্বৃত্ত মারাত্নক অস্ত্রে সস্ত্রে সজ্জিত হয়ে দুর্বৃত্তরা প্রবাসী দিল মোহাম্মদের বাড়িতে হানা দেয়। প্রবাসীর বসত ভিটায় অনধিকার প্রবেশ করে ভিটায় স্থিত গাছ কেটে ফেলে এবং নতুন ও পুরাতন পাকা বাউন্ডারী দেয়াল, ঘরের দরজা, জানালার গ্লাস, কেটে ও ভাংচুর করে আনুমানিক ৫ লাখ টাকার ক্ষয়ক্ষতি সাধন করে। এসময় প্রবাসীর ছেলে আবু তারেক (২১)কে খুন করার উদ্দেশ্যে ঘর হতে ডাকাডাকি করে।আবু তারেক ঘর হতে বের না হওয়ায় দুর্বৃত্তরা একটি ফাঁকা গুলি বর্ষণ করে। ঘরে ডাকাত হানা দিয়েছে বলে পরিবারের লোকজন শোর চিৎকার শুরু করলে দুর্বৃত্তরা পালিয়ে যায় বলে জানিয়েছেন আক্রান্ত পরিবার।

এ ঘটনার খবর পেয়ে দ্রুত এলাকায় পেট্রোল ডিউটিরত রামু থানার এসআই অসীমের নেতৃত্বে একদল পুলিশ প্রবাসীর বাড়ীতে পৌছেন এবং ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন।

এ ব্যাপারে রামু রশিদ নগর ইউনিয়নের কাদমরা গ্রামের দিল মোহাম্মদের সাজেদা আক্তার বুলবুল বাদী হয়ে একই এলাকার মৃত ছিদ্দিক আহাম্মদের ছেলে ইউপি সদস্য ছালাহ উদ্দিন, মামুনর রশিদ, নুরুল ইসলামের ছেলে দেলোয়ার হোসেন , মৃত আমির মোহাম্মদের ছেলে নুরুল ইসলাম , নুরুল আমিন ও নুরুল ইসলামের ছেলে মোঃ রিদুয়ান সহ আরো অজ্ঞাত নামা ৪/৫ জনের বিরুদ্ধে ২৯ ডিসেম্বর রামু থানায় এজাহার দায়ের করেন।

প্রবাসীর স্ত্রী সাজেদা আক্তার বুলবুল বলেন, আমাকে সহ আমার ছেলেমেয়েদেরকে আরো মারধর, খুন, জখম করিবে, ঘর বাড়ি পুড়াইয়া দিবে, আমাদেরকে যে কোন মিথ্যা বানোয়াট মামলায় জড়ি এলাকা ছাড়া করবে ও প্রাণ নাশের হুমকি দেন।

সৌদি আরব প্রবাসীর পরিবার বর্তমানে আতঙ্কের মধ্যে আছেন বলে জানা গেছে।