চাকমা নারীকে ধর্ষণের দায়ে চট্টগ্রামে গ্রেপ্তার-১

উপজাতি এক কিশোরীকে গণধর্ষণের অভিযোগ যিশু চৌধুরী (২৭) নামে একজনকে গ্রেপ্তার করেছে র‌্যাব। শনিবার (৮ অক্টোবর) ভোর সাড়ে ৫টায় চট্টগ্রাম নগরীর কোতোয়ালী থানাধীন আন্দরকিল্লার রাজাপুকুর লেন থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। গ্রেপ্তার হওয়া যিশু বাঘাইছড়ির করোঙ্গাতলী বাজারের সমীর চৌধুরীর ছেলে।

র‌্যাব জানায়, গত ১৫ জুলাই রাত ৯টায় পূর্ব শত্রুতার জের ধরে বিপ্লব বড়ুয়া জরুরি আলাপ আছে বলে ভিকটিমকে বাড়ির বাইরে ডেকে নিয়ে যায়। পরে ভিকটিম ঘরে না ফেরায় তার মা আশেপাশে খোঁজাখুঁজি করেন। পরদিন ভোরে ভিকটিম বাড়িতে এসে জানায় বিপ্লব বড়ুয়া তাকে ডেকে নিয়ে তার সঙ্গী যিশু চৌধুরীসহ কয়েকজন মুখ চেপে ধরে বড়ুয়া পাড়ার একটি ঘরে নিয়ে যায়। সেখানে সবাই মিলে সারারাত ভিকটিমকে ধর্ষণ করে। এ ঘটনায় ভিকটিমের মা বাঘাইছড়ি থানায় ৫ জনকে আসামি করে একটি মামলা দায়ের করেন।

র‌্যাব আরও জানায়, গণধর্ষণ মামলার ঘটনাকে কেন্দ্র করে পাহাড়ি চাকমাদের সঙ্গে সেখানের সংখ্যালঘু বড়ুয়া, হিন্দু ও মুসলিমদের দ্বন্ধ চরম আকার ধারণ করে। এমনকি গোলাগুলিরও ঘটনা ঘটে। মামলায় ৫ আসামির মধ্যে ২ জন বৌদ্ধ, ১ জন হিন্দু ও ২ জন মুসলিম সম্প্রদায়ের লোক ছিল। সবাই একে অপরের ঘনিষ্ঠ বন্ধু। এ ঘটনায় ইউপিডিএফ অভিযুক্ত ৫ আসামিকে আগুনে পুড়িয়ে হত্যা করার চেষ্টাও করেছিল। সেনাবাহিনী এ সংঘাত এড়ানোর জন্য দুই পক্ষকে নিয়ে আলোচনাও করেছে। কিন্তু আসামিরা গ্রেপ্তার না হওয়ায় বিষয়টি সমাধান হয়নি।

র‌্যাব-৭ এর সিনিয়র সহকারী পরিচালক (মিডিয়া) মো. নুরুল আবছার বলেন, এ মামলার আসামিদের গ্রেপ্তারে গোয়েন্দা নজরদারি অব্যাহত রাখে র‌্যাব। ধারাবাহিক অভিযানের ফলশ্রæতিতে কোতোয়ালী থানাধীন রাজাপুকুর লেনে অভিযান চালিয়ে ২ নম্বর আসামি যিশু চৌধুরীকে গ্রেপ্তার করা হয়। তাকে সংশ্লিষ্ট থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে।