আত্মসমর্পণকৃত জলদস্যুরা পেলো র‌্যাব’র ঈদ উপহার

 

চট্টগ্রাম ব্যুরো :: চট্টগ্রামের বাঁশখালী, মহেশখালী, কুতুবদিয়া ও পেকুয়া উপকূলীয় এলাকা হতে আত্মসমর্পণকৃত ৭৭জন জলদস্যুদের (আলোর পথের অভিযাত্রীদের) মাঝে র‌্যাব ফোর্সেস মহাপরিচালক এম খুরশীদ হোসেন এর পক্ষ থেকে র‌্যাব-৭, চট্টগ্রামের উদ্যোগে পবিত্র ঈদ-উল-ফিতর’২৩ উপলক্ষে উপহার সামগ্রী বিতরণ করা হয়েছে। এসময় তাদের বর্তমান জীবন যাপনের উপর একটি বিশেষ মতবিনিময় সভা করেছে র‌্যাব-৭, চট্টগ্রাম।

শনিবার (১৫ এপ্রিল) বাঁশখালী উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে র‌্যাব ফোর্সেস এর মহাপরিচালকের পক্ষ থেকে মহেশখালী, কুতুবদিয়া, বাঁশখালী ও পেকুয়া উপকূলীয় অঞ্চলের আত্মসমর্পণকৃত আলোর পথের অভিযাত্রীদের মাঝে এ ইদ উপহার বিতরণ ও মতবিনিময় সভা সম্পন্ন হয়।

এ সময় র‌্যাব-৭, চট্টগ্রামের অধিনায়ক লেঃ কর্ণেল মোঃ মাহবুব আলম, কোম্পানি কমান্ডার মেজর মেহেদী হাসান, বাঁশখালী উপজেলা নির্বাহী অফিসার সাইদুজ্জামান চৌধুরী, র‌্যাব-৭ এর মিডিয়া অফিসার সিনিয়র সহকারী পরিচালক মোঃ নুরুল আবছার, বাঁশখালী থানার ওসি তদন্ত সুধাংশু শেখর হালদারসহ স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ এবং প্রিন্ট ও ইলেক্ট্রনিক মিডিয়ার সাংবাদিকবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

উল্লেখ্য, র‌্যাব-৭, চট্টগ্রামের বিশেষ অভিযানে গত ২০১৮ সালের ৪৩ জন জলদস্যুকে আত্মসমর্পণ করাতে সক্ষম হয় এবং তাদের আত্মসমর্পণ পরবর্তী সময়ে র‌্যাব-৭, চট্টগ্রাম কর্তৃক বিভিন্ন সময়ে বিভিন্ন সহযোগিতার মাধ্যমে তারা স্বাভাবিক জীবন যাপন শুরু করে। আত্মসমর্পণকৃত জলদস্যুদের সমাজে স্বস্থির সাথে স্বাভাবিক জীবনযাপন ও র‌্যাবসহ সকল আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী কর্তৃক সহযোগিতার মনোভাবের কথা বিবেচনা করে গত ২০২০ সালে র‌্যাব-৭, চট্টগ্রাম আরও ৩৪ জন জলদস্যুকে আত্মসমর্পণ করাতে সক্ষম হয়। র‌্যাব-৭, চট্টগ্রাম উল্লেখিত জলদস্যুদের আত্মসমর্পণের পর থেকে সামাজিক ও ধর্মীয় অনুষ্ঠানসহ বিভিন্ন সময়ে তাদেরকে ইদ সামগ্রী উপহার ও প্রণোদনা প্রদান করে থাকে।

আরও পড়ুন