নেপালের রাজধানী কাঠমুন্ডুতে নিষিদ্ধ হল ‘ফুচকা’

ফুচকা, গোলগাপ্পা বা পানিপুরী দক্ষিণ এশিয়ার জনপ্রিয় এ খাবার এবার নিষিদ্ধ হয়েছে নেপালের রাজধানী কাঠমুন্ডুতে। কলেরার ক্রমবর্ধমান সংক্রমণের পরিপ্রেক্ষিতে রাজধানী শহরটির কর্তৃপক্ষ এ সিদ্ধান্তের ঘোষণা দিয়েছে।

কাঠমুন্ডু উপত্যকার ললিতপুর মেট্রোপলিটন সিটি (এলএমসি) জানায়, ফুচকাতে ব্যবহৃত জলে কলেরার ব্যাকটেরিয়া পাওয়া গেছে। এদিকে রাজধানী জুড়েও বাড়ছে কলেরা আক্রান্তের সংখ্যা ফলে কর্তৃপক্ষ ফুচকা বিক্রি বন্ধের আদেশ দিয়েছেন।

এলএমসি জানিয়েছে, শনিবার (২৫ জুন) থেকে এ সিদ্ধান্ত কার্যকর হয়েছে। খবর হিন্দুস্তান টাইমস।

নেপালের স্বাস্থ্য ও জনসংখ্যা মন্ত্রণালয়ের তথ্য অনুযায়ী, কাঠমুন্ডুতে ১২ জন কলেরা আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি রয়েছেন। নতুন করে পানিবাহিত রোগটিতে সংক্রমিত হয়েছেন ৭ জুন।

দেশটির এপিডেমিওলজি এবং রোগ নিয়ন্ত্রণ বিভাগের পরিচালক চুমনলাল দাসের জানান, কাঠমান্ডু মহানগরীতে কলেরার পাঁচটি এবং চন্দ্রগিরি পৌরসভা এবং বুধনীলকন্ঠ পৌরসভায় একটি করে কেস শনাক্ত করা হয়েছে। আক্রান্তদের চিকিৎসা চলছে টেকুর শুকরাজ ট্রপিক্যাল ও সংক্রামক ব্যাধি হাসপাতালে।

উল্লেখ্য, বর্ষাকালে নানা রকম পানিবাহিত রোগের সংক্রমণ দেখা দেয় নেপালে। এর মধ্যে কলেরা ও ডায়েরিয়ার মতো সংক্রামক অন্যতম। এ অবস্থায় কাঠমান্ডুর প্রশাসন মনে করছে, দ্রুত ফুচকা বিক্রি বন্ধ না করলে সেখান থেকে সংক্রমণ আরও দ্রুত ছড়িয়ে পড়তে পারে।

ভারত, শ্রীলঙ্কা, বাংলাদেশ, নেপাল তথা সমগ্র দক্ষিন পূর্ব এশিয়ার অত্যন্ত জনপ্রিয় খাদ্য ফুচকা। এ অঞ্চলের প্রায় সর্বত্রই এই খাদ্যটির প্রচলন রয়েছে। অঞ্চলভেদে এটি বিভিন্ন নামে পরিচিত।

আরও পড়ুন