দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে গণপরিবহন, রেগুলার লাইনের বাস ও প্রাইভেটকার চলবে

আসন্ন দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের দিন গণপরিবহন, রেগুলার লাইনের বাস ও প্রাইভেটকারের ওপর নিষেধাজ্ঞা থাকবে না। অন্যান্য বছরের তুলনায় এবার এসব যানবাহন চলাচলের বিষয়ে কিছুটা শিথিলতা আনা হয়েছে। তবে নিষেধাজ্ঞা থাকবে মোটরসাইকেল, স্পিডবোটসহ বেশকিছু যানবাহনের চলাচলে।

 

আজ (মঙ্গলবার) সকাল ১০টায় রাজধানীর বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে ২য় পর্যায়ে এক্সিকিউটিভ (নির্বাহী) ম্যাজিস্ট্রেটদের দিনব্যাপী প্রশিক্ষণ কার্যক্রমের উদ্বোধন অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্যকালে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের জননিরাপত্তা বিভাগের সিনিয়র সচিব মো. মোস্তাফিজুর রহমান এসব কথা বলেন।

 

জননিরাপত্তা বিভাগের সচিব বলেন, এবার আমরা নির্বাচন কমিশনারের মতামত নিয়ে যানবাহন চলাচলের ওপর এরআগে যে সব কঠোরতা ছিল সেটা শিথিল করা হয়েছে। বর্তমান প্রেক্ষাপটে একজন মানুষ ভোটকেন্দ্রে যেতে গেলে তার একটি যানবাহন প্রয়োজন হয়। যে সমস্ত যানবাহনগুলো মানুষের দৈনন্দিন কাজে ব্যবহার হয় সেগুলোর চলাচলের বৈধতা দেওয়া হয়েছে। এই সংক্রান্ত সার্কুলারও দ্রুত পাওয়া যাবে।

 

মোস্তাফিজুর রহমান আরো বলেন, নির্বাচনের দিন প্রাইভেটকার, সিএনজিচালিত অটোরিকশা ও অটোরিকশা চলবে। তবে মাইক্রোবাস, স্পিডবোট ও মোটরসাইকেলসহ অন্যান্য কিছু যানবাহনের ওপর নিষেধাজ্ঞা বলবৎ রয়েছে। এটি আমাদের নির্বাচন কমিশনের মতামতের ভিত্তিতেই করা হয়েছে। রেগুলার বাস, পাবলিক সার্ভিস বাস এবং পাবলিক ট্রান্সপোর্টগুলো চলবে। কারণ ভোটারের যাতায়াতটাকে যদি আমরা বাধাগ্রস্ত করি তাহলে তারা ভোটকেন্দ্রে যাবে না।

 

এক্সিকিউটিভ (নির্বাহী) মেজিস্ট্রেটদের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, মোবাইল কোর্ট পরিচালনার সময় কোনো ছবি তুলবেন না। এগুলো বাহাদুরি করার কোনো বিষয় নয়। মানুষের সঙ্গে খারাপ ব্যবহার করবেন না। মাঠ পর্যায়ে সব বাহিনীর সঙ্গে সমন্বয় করে দায়িত্ব পালন করবেন।

অস্ত্র আইনের বিধান অনুযায়ী লাইসেন্সধারী কোনো ব্যক্তি যেকোন ধরনের অস্ত্র বহন ও প্রদর্শন করতে পারবেন না বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

 

অনুষ্ঠানটি নির্বাচন কমিশন সচিবালয়ের সচিব মো. জাহাংগীর আলমের সভাপতিত্ব করেন। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত আছেন নির্বাচন কমিশনার (ইসি) মো. আনিছুর রহমান। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত আছেন অর্থ মন্ত্রণালয়ের অর্থ বিভাগের সচিব ড. মো. খায়রুজ্জামান মজুমদার, মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের সমন্বয় ও সংস্কার বিভাগের সচিব মো. মাহমুদুল হোসাইন খান। এছাড়াও অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন নির্বাচনি প্রশিক্ষণ ইন্সটিটিউটের মহাপরিচালক এস এম আসাদুজ্জামান।

আরও পড়ুন