কারাদণ্ড ও আপিলের শর্তে জামিনে ইউনুস

ড. মুহাম্মদ ইউনূসের বিরুদ্ধে কলকারখানা ও প্রতিষ্ঠান অধিদপ্তরের দায়ের করা মামলায় ৬ মাসের কারাদণ্ড এবং ২৫ হাজার টাকা জরিমানা করে আদালত। সাজা পাওয়া ড. মুহাম্মদ ইউনূসকে ৩০ দিনের মধ্যে আপিল করার শর্তে জামিন দিয়েছেন আদালত।

সোমবার (১ জানুয়ারি) এই সাজা ঘোষণার পর আদালতে জামিন আবেদন করা হলে ঢাকার তৃতীয় শ্রম আদালতের বিচারক বেগম শেখ মেরিনা সুলতানার  আদালতে এ জামিন মঞ্জুর করা হয়। আদালতে ড. ইউনূসের পক্ষে রয়েছেন ব্যারিস্টার আব্দুল্লাহ আল মামুন, সারা হোসেন ও খাজা তানভীর আহমেদ । অপরদিকে কলকারখানার পক্ষে রয়েছেন এডভোকেট খুরশীদ আলম খান।

আদালত থেকে বেরিয়ে ড. মুহাম্মদ ইউনূস বলেছেন, যে দোষ করিনি, সেই দোষের শাস্তি পেলাম৷ এটাকে ন্যায়বিচার যদি বলতে চান, তাহলে বলতে পারেন৷

তিনি আরো বলেন, ২০২৪ সালের প্রথম দিন আজকে। আমরা আজকে আদালতে এসেছিলাম রায় শোনার জন্য৷ এসে মনটা ভরে গেল, আমার বহু বন্ধু-বান্ধব এখানে পেয়ে গেলাম, যাদের সঙ্গে আমার বহুদিন দেখা হয়নি৷ এরা আজকে এসেছে, এই আনন্দের দিনে যে কী রায় হয় দেখার জন্য৷ আমার কী অবস্থা দাঁড়াবে৷ আমি কিন্তু খুবই খুশি তাদের দেখে৷ মনটা ভরে গেল৷ বহুদিন পরে যারা বিভিন্ন দেশ থেকে এসেছে, ছুটিতে এসেছে৷ এক জায়গায় একত্র হওয়ার সুযোগ পেলাম আমরা৷

আরও পড়ুন