কুতুবদিয়ায় আগুনে ৫বসতঘর ক্ষতিগ্রস্থ

কক্সবাজারের কুতুবদিয়া উপজেলার উত্তর ধূরুং ইউনিয়নের কায়ছার পাড়া গ্রামে অগ্নিকান্ডে পাঁচটি পরিবারের বসতবাড়ি পুড়ে ছাই হয়ে গেছে। এতে পরিবারগুলোর নগদ টাকা, স্বর্ণালংকার, কাপড়-চোপড় ও যাবতীয় জিনিসপত্রসহ প্রায় ২৮ লক্ষাধিক টাকার ক্ষয়ক্ষতির হয়েছে বলে জানা গেছে।

বসতঘর পুড়ে যাওয়া এসব পরিবারের সদস্যরা খোলা আকাশের নিচে দিন কাটাচ্ছেন।

রবিবার রাত ১০টার দিকে আগুনের এ ঘটনা ঘটে। স্থানীয়রা ও ক্ষতিগ্রস্তরা এসব তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

ক্ষতিগ্রস্থরা হলেন, শের উল্লাহর দুই পুত্র মোঃ দেলোয়ার, মোঃ মানিক ও আমান উল্লাহর দুই পুত্র তৌহিদুল ইসলাম ও নজরুল ইসলাম এবং মৃত গোলাম সোবহানের পুত্র আমান উল্লাহ।

এলাকাবাসী ও ক্ষতিগ্রস্তরা জানান, রবিবার রাত ১০টায় উপজেলার উত্তর ধূরুং ইউনিয়নের কায়ছার পাড়া মানিকের রান্নাঘরের গ্যাসের সিলিন্ডার থেকে আগুনের সূত্রপাত হয়। পরে আশপাশের পাঁচটি বসতঘর পুড়ে ছাই হয়ে যায়। বর্তমানে ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারগুলো প্রতিবেশীদের দেওয়া কাপড়চোপড় পরে আছেন।

স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান আবদুল হালিম জানান, “রবিবার রাত ১০টায় কায়ছার পাড়ায় আগুন লাগার খবর পাওয়ার সাথে সাথে বাড়ি থেকে ঘটনাস্থলে ছুটে যায়। এরপর স্থানীয়দের সাথে নিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনা হয়। ধারণা করা হচ্ছে, মানিকের রান্নাঘর থেকে এ আগুনের সূত্রপাত হয়েছে।“

সোমবার সকালে পুড়ে যাওয়া বসতঘর পরিদর্শন করেছেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা দীপংকর তঞ্চঙ্গ্যা।

তিনি ক্ষতিগ্রস্তদের প্রয়োজনীয় জিনিসপত্র প্রদান করেন এবং উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে বাড়ি নির্মাণে সহযোগিতা করা হবে বলে জানান।

এসময় উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা মোঃ জিয়াউর রহমান, দক্ষিণ ধূরুং ইউপি চেয়ারম্যান আলহাজ্ব আলাউদ্দিন আল আযাদ, উত্তর ধূরুং ইউপি চেয়ারম্যান আলহাজ্ব আবদুল হালিম সিকদার উপস্থিত ছিলেন।

আরও পড়ুন